Collection of old but golden jokes
Post #21
pera|| 
Members

30/10/2017 12:49:05
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
শিক্ষক ক্লাসে গিয়ে এক এক করে সবার নাম জিজ্ঞাসা করছেন ।
হঠাৎ করে এক ছাত্রীকে জিজ্ঞাসা করলেন তোমার নাম কি ?
.
ছাত্রী: আই নো, স্যার ।
.
শিক্ষকsad.gifরেগে গিয়ে) তার মানে ?
.
*
*
*
ছাত্রী:'আই' মানে আমি আর 'নো' মানে না ।।
অর্থাৎ আমার নাম আমিনা স্যার....
top

Post #22
pera|| 
Members

30/10/2017 12:49:54
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
লাল্টু ও বল্টু ২ বন্ধু ।
তো, লাল্টু সবসময় বল্টু কে টেক্কা
দিয়ে উপরে ওঠার চেষ্টা করে।
এমন ই ১টা টেক্কা দেওয়ার
চেষ্টা চলছে!!!!
লাল্টু একটা দোকানে গেল।
দোকানের কর্মচারীদের কে
ব্যাস্ত থাকতে দেখে, সে ৩টা
চকলেট চুরি করে নিয়ে আসলো।
ফেরার পথে বল্টুর সাথে তার
দেখা হয়ে যায়।
তারপর,
লাল্টুঃ কিরে, আজ আমি ওই
দোকান থেকে ৩টা চকলেট চুরি
করে এনেছি। তুই এর থেকে বড়
কিছু করে দেখাতে পারবি?
বল্টুঃ চল করে দেখাবো।
এরপর সে লাল্টু কে নিয়ে সেই
দোকানে ফিরে গেল।
তখন,
দোকানদারঃ কি চাই?
বল্টুঃ জাদু দেখবেন?
দোকানদারঃ হুম দেখবো।
দেখা..
বল্টুঃ তাহলে ১টা চকলেট দিন।
দোকানদার তাকে দিলো।
সেটা খাওয়ার কিছুক্ষণ পরেঃ
আরো ১টা চকলেট দিন,
সেটাও খেল এবং কিছুক্ষণ পরে
আবার চকলেট চাইলো এবং
দোকানদার তাকে দিলো।
বল্টু সেটাও খেয়ে নিলো।
দোকানদারঃ কিরে, জাদু
দেখাবি বলে সব চকলেট খেয়ে
ফেললি যে?
বল্টুঃ ছু মন্তর ছু - সুত ভুত পং চু
এরপর পল্টুর পকেট দেখিয়ে দিয়ে
বললো এবার দেখুন তো
ওর পকেটে চকলেট গুলো আছে
কিনা?
top

Post #23
pera|| 
Members

30/10/2017 12:55:41
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
বল্টুর একবার
বিজ্ঞানী হবার খুব
শখ হলো!!
.
তো সে একটা তেলাপোকা নিলো
গবেষণার
জন্য।
.
সে তেলাপোকার
একটা পা কাটল আর
বলল
“হাঁটো”!!
.
তেলাপোকাটি কষ্ট তার
স্বাভাবিক
নিয়মে জান
বাঁচাতে হাঁটতে লাগলো।
.
এরপর সে আরও
একটি পা কাটল
এবং বলল "হাঁটো”!!
.
তেলাপোকাটি এবারো অনেক
কষ্টে হাঁটতে লাগলো।
.
এভাবে বল্টু সব
গুলো পা কাটল
এবং বলল“হাঁটো”!!
.
কিন্তু
তেলাপোকাটি আর
হাঁটতে পারল নাহ!!
.
তারপর বল্টু
ঘোষণা দিলঃ breaking news..!!!
:
:
:
:
“সবগুলো পা কেটে ফেলার পর
তেলাপোকা আর কানে শুনতে পায়
না !!
top

Post #24
pera|| 
Members

30/10/2017 12:57:03
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
বল্টু : বলতো সোনালি ২+২ = কত?
সোনালি : ৪ স্যার।
বল্টু : সঠিক উত্তর। আরেকটা বলো ১+১= কত?
সোনালি : ২ স্যার,
বল্টু : সোনালি তুমি কি বলতে পারো ১+১ = ২
না হয়ে কখন ৩,৪,৫,৬,,,,,,,,,,,,, এভাবে সংখ্যাটা
বাড়তে থাকে।
সোনালি : না স্যার, আমি তা জানি না।
বল্টু : ক্লাসে কে আছো যে এই অংকটা করতে
পারো।
পল্টু পিছন থেকে দাঁড়িয়ে বললো আমি আছি
স্যার।
বল্টু : ওকে বল।
পল্টু : স্যার সোনালি যদি আমাকে হেল্প করে
তবে আমি এই প্রশ্নের বাস্তব উত্তর দিতে
পারবো।
সোনালি দাঁড়িয়ে বলছে স্যার আমি পল্টুকে
হেল্প করতে রাজি।
পল্টু : স্যার আপনি শুধু সোনালির সাথে আমার
বিয়ে দিয়ে দেন। আর এক বছর পরে আপনি
রেজাল্ট পাবেন ১+১= ৩
এভাবে প্রতি বছর রেজাল্ট আসবে স্যার।
সোনালি তো বেঁহুশ বেচারি
top

Post #25
pera|| 
Members

30/10/2017 12:58:12
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
বল্টুর বউ বায়না ধরেছে, ওকে
কিরণমালা জামা কিনে দিতে
হবে। তো বল্টু তখন তার বউকে নিয়ে
মার্কেটে গেল।
:
দোকানদারঃ কি লাগবে?
:
বল্টুর বউঃ কিরণমালা জামা
দেখান তো।
:
দোকানদারঃ স্যরি আপা,
কিরণমালা জামা নেই, সব জামা
ছিনতাই হয়ে গেছে। পাখি আছে,
দেখাবো ?
:
বল্টুর বউঃ না থাক ওগুলো তো
পুরোনো হয়ে গেছে। এই বলে তারা
পাশের দোকানে চলে গেল। কিন্তু
পাশের দোকানদার ও একই কথা
বললো। তারপর তারা সারা শহর ঘুরে
বেড়ায়, কিন্তু কোথাও কিরণমালা
জামা পায়না। সব দোকানদার ই
বলে যে কিরণমালা জামা ছিনতাই
হয়ে গেছে। এই পরিস্থিতি দেখে
বল্টুর বউ এর মন টা খারাপ হয়ে যায়।
সে বাড়ি এসে কাঁদতে শুরু করে।
তখন...
:
বল্টুঃ কেঁদোনা সোনা, ছিনতাই
হয়ে গেলে তো আমাদের আর কিছুই
করার নেই।
:
বল্টুর বউঃ কিন্তু ছিনতাই টা করলো
কে ?
:
বল্টুঃ কে আবার ?
*
*
*
*
*
*
*
*
*
ওই শয়তানী কটকটি ছাড়া ?
:
বল্টুর বউঃ ঠিক বলেছো, ওই কটকটি ই
সব কিরণমালা জামা গুলো ছিনতাই
করেছে। এই কথা বলেই সে আবার
কাঁদতে শুরু করলো। তারপর..............
:
বল্টুঃ কেঁদোনা লক্ষী টি, এবার ঈদ
এ আপাতত কটকটি আর বজ্রমালা পরে
চালিয়ে নাও। কথা দিচ্ছি,
আগামী ঈদ এ আমি তোমাকে
*
*
*
*
*
*
*
*
*
*
জুতোরমালা পরিয়েই ছাড়বো।
top

Post #26
pera|| 
Members

30/10/2017 12:58:59
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
চৌধুরী সাহেব : তর মত
লুঙ্গি পরা ছেলের
কাছে আমার
মেয়ের
বিয়া দিমুনা।
: : আবুল >>
আপনে নিজেও ত
লুঙ্গি পরছেন...
:
চৌধুরী সাহেব >> আমার
লুঙ্গি বেনারসি শাড়ির কাপড়
দিয়ে বানানো দামি লুঙ্গি...
:
আবুল >>
চৌধুরী সাহেব,বেনারসি লুঙ্গি
নিয়ে অহংকার
করবেননা, মেজাজ গরম
হইয়া গেলে আপনের
লুঙ্গির
নিচেককটেল মাইরা লুঙ্গি উড়াইয়া
দিমু...
:
চৌধুরী সাহেব >> মুখ
সামলে কথা বল...
এমন সময় চৌধুরী সাহেব
এর একমাত্র
কন্যা "প্রিয়া"
দৌড়ে আসলো। :
প্রিয়া >> বাবা, আমি লুঙ্গি পড়া
আবুলকেই
বিয়ে করবো ...
তোমার বন্ধু খান
সাহেবের
ছেলে হাফপ্যান্ট পড়া "ব্যাটারি
সুমন"
রে বিয়ে করব
না।
:
চৌধুরী সাহেব >>
এই
লুঙ্গি পড়া আবুল্যারে পছন্দ কইরা তুই
আমার বংশের
মুখে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন
এর
ময়লা লাগাইয়্যা
দিলি। :
আবুল প্রিয়ার হাত
ধরে চৌধুরী সাহেব
এর
বাড়ি থেকে বের হয়ে আসছে।
এমন সময়
চৌধুরী সাহেব তাদের আটকানোর
জন্য
পিছন
দিকে দৌড়ে আসলেন তখনই এক
ঝড়ো বাতাস
এসে চৌধুরী সাহেব
এর লুঙ্গি উড়াইয়া নিয়ে
গেল,বাতাসকে উদ্দেশ্য
করে চৌধুরী তখন সাহেব গান
ধরলেন....
"পাগলা হাওয়ার
তরে...
লুঙ্গি আমার যায় যে উড়ে... ওরে
ওরে
হাওয়া থাম না রে

অাবুল যায় আমার মেয়ের হাত ধরে।।।
top

Post #27
pera|| 
Members

30/10/2017 12:59:47
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
ছাত্রীঃ স্যার শুনছেন ।
স্যারঃ বলো ।
ছাত্রীঃ স্যার আজকে রাত
১০ টায় আমাদের
বাসায়
আসবেন যখন
মা.বাবা ঘুমিয়ে পরবে ।
স্যারঃ কিন্তু রাতে কেন ?
ছাত্রীঃ আপনাকে একটা
সারপ্রাইজ
দিবো
স্যারঃ আচ্ছা আসবো ।
রাত ১০ টায় স্যার
গেলেন ।
ছাত্রীঃ স্যার
ভেতরে আসেন ।
স্যারঃ আসলাম ।
ছাত্রীঃ স্যার এবার
দরজাটা লাগিয়ে দেন
স্যারঃ লাগালাম, কিন্তু
কেন ?
ছাত্রীঃ স্যার এবার
জানালা দুইটা বন্ধ
করেন ।
স্যারঃ কিছু
বুঝতে পারতেছিনা ,
নাও বন্ধ করলাম ।
ছাত্রীঃ স্যার এবার
সুইজটা OF করেন
স্যারঃ আচ্ছা এই যে এবার
বাতি OF করলাম

ছাত্রীঃ স্যার এবার আমার
নিচের
দিকে তাকান ।
স্যারঃ তাকালাম ।
.
.
.
.
ছাত্রীঃ দেখছেন স্যার
আমার জুতায় লাইট
জ্বলে।।।!!!!
top

Post #28
pera|| 
Members

30/10/2017 13:00:25
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
টুনি একদিন বাস স্টোপে সুদর্শন
বল্টুকে দেখে তার প্রেমে পড়ে গেল....
.
সরাসরি বল্টুর কাছে গিয়ে
নির্দ্বিধায় বলল,
.
" আমি তোমাকে ভালোবাসি ! "
.
বল্টু টুনির কথা
শুনেই, হকচকিয়ে গেল প্রথমে....
.
কিছুক্ষণ পরে ধাতস্থ হয়ে, টুনির মাথায় হাত রেখে, বল্টু বলল,
.
" এই ভালোবাসা কথাটি একটি
সাময়িক মোহ....এই মোহের বশে মানুষ দিক্-বিদিক জ্ঞান হারিয়ে ফেলে....
তুমি ফিরে যাও, ভালোভাবে লেখাপড়া শেষ করে, নিজের জীবনকে সাফল্য মণ্ডিত কর....,"
.
বল্টু তারপর, নিজের বুক পকেট থেকে
একটা
ছোট্ট ডাইরি বের করে, তার পাতায়
কিছু একটা
লিখে, পাতাটি ছিঁড়ে ভাঁজ করে টুনির
হাতে
দিয়ে বলল,
.
" এটায় কিছু উপদেশ লিখে দিলাম,
রাতে ঘুমোবার আগে, দয়া করে পড়ে
নিও ! "
.
এই বলে বল্টু চলে গেল ।
.
টুনি কাঁদতে কাঁদতে ফিরে গেল তার
হোষ্টেলে......
.
রাতে শোবার আগে, বল্টুর দেওয়া
ডাইরি'র ভাঁজ
করা পাতাটি খুলে, টুনি পড়তে লাগল.....
.
" তোমার কি মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছিল...না, অন্ধ হয়ে গিয়েছিলে. ..পেছনে আমার বৌ দাঁড়িয়ে ছিল !
যাইহোক, আমার ফোন নম্বর লিখে দিলাম...যখন খুশী আমাকে ডেকো...আর হ্যাঁ, আমিও তোমাকে খুব ভালোবাসি, ডার্লিং....!
.
পড়া শেষে কি আর হবে
টুনি বেহুঁশ হয়ে গেলো
ওরে তোরা কেউ পানি নিয়ে আয়
টুনির জ্ঞান ফিরাতে হবে।
top

Post #29
pera|| 
Members

30/10/2017 13:01:10
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
বল্টুর মামা আমেরিকা
যাওয়ার সময় বল্টুকে জিজ্ঞাসা
করল---"ভাগনা, আমেরিকা থেকে
তোর জন্য কি আনব..??"
বল্টু : এক মুঠো মাটি।
মামা : কি ?
সবাই মামার কাছে মোবাইল,
ঘড়ি, ল্যাপটপ চায়, আর তুই চাস
"মাটি"
বল্টু : হুম। আমার জন্য মাটিই
আনবে। আমি অন্য কিছু চাইনা।
মামা : কেন ???
বল্টু : কারন তোমার দেয়া
একমূঠো মাটিতে পা রেখে বলব,
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
আমিও একদিন আমেরিকার
মাটিতে পা রেখেছিলাম।"
top

Post #30
pera|| 
Members

30/10/2017 13:02:01
(167 weeks ago)
Ratio: 1.04
Posts: 319
Bangladesh  
বল্টু এন্ড বল্টুর
বাবার কথোপকথনঃ-
*....*....*.... *
বাবাঃ আমার জন্য
একটা ড্রিঙ্কস
নিয়ে আসো তো দোকান
থেকে ।
.
বল্টুঃ বাবা ঠাণ্ডা
নাকি গরম ?
.
বাবাঃ ঠাণ্ডা
অফকোর্স !
.
বল্টুঃ বাবা পেপ্সি
নাকি কোক ?
.
বাবাঃ পেপ্সি
.
বল্টুঃ বাবা বোতলের
নাকি
টিনের ?
.
বাবাঃ বোতলের ,
.
বল্টুঃ বড় বোতল নাকি
ছোট
বোতল ?
.
বাবাঃ ছোট বোতল ,
.
বল্টুঃ আচ্ছা বাবা
নরমাল নাকি
ডায়েট ?
.
বাবাঃ ধুরু , লাগবে না যা
পানি
নিয়ে আস একটা ,
.
বল্টুঃ বাবা ঠাণ্ডা
নাকি গরম ?
.
বাবাঃ অফকোর্স
ঠাণ্ডা ,
.
বল্টুঃ বাবা খাওয়ার
পানি নাকি
ইয়ুজ করার জন্য ?
.
বাবাঃ মাইর খাবি
এখন !!
.
বল্টুঃ বাবা হাত দিয়ে
নাকি
লাঠি দিয়ে ?
.
বাবাঃ বেশি কথা বলস
, যা ভাগ
সামনে থেকে ,
.
বল্টুঃ বাবা দৌড় দিয়ে
ভাগব
না হেটে হেটে ?
.
বাবাঃ বেয়াদব , দিন
দিন
জানোয়ার হইতাসস !
.
বল্টুঃ কোন জানোয়ার ?
কুত্তা
নাকি বিলাই ?
.
বাবাঃ আমি এখন তোরে
জবাই
করবো ,যা বলসি !!
.
বল্টুঃ বাবা চাকু দিয়ে
নাকি বটি
দিয়ে ?
.
বাবাঃ বটি দিয়ে !!
.
বল্টুঃ টুকরা টুকরা
নাকি বড় বড়
পিস ?
.
বাবাঃ হারামি তুই
যাবি ??
.
বল্টুঃ বাবা একলা যাব
নাকি
তোমার সাথে যাব ?
.
বাবাঃ তোর উপর থাডা
পরুক !
.
বল্টুঃ বাবা ভুমিকম্প
নাকি
বজ্রপাত ?
.
বাবাঃ ওহ খোদা আমার
হার্ট এ
পেইন হচ্ছে !.
.
বল্টুঃ বাবা হসপিটাল
এ নিয়ে যাব
নাকি ডক্টর ডাকব ??
.
বাবাঃ পানি দে আমাকে
.
বল্টুঃ বাবা ঠাণ্ডা
নাকি গরম ?
.
বাবাঃ নরমাল
.
বল্টুঃ বাবা খাবে নাকি
ইয়ুজ
করবে..................... ??
top